মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০

১৯ শ্রাবণ ১৪২৭

ই-পেপার

আমার সংবাদ ডেস্ক

আগস্ট ০২,২০২০, ১২:১৩

আগস্ট ০২,২০২০, ১২:১৩

শ্রীলংকা সফরে টি-২০ও রাখার চিন্তা বিসিবির

শ্রীলংকা সফর দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তালা খুলতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সেজন্য দুই বোর্ডের আলোচনাও অব্যাহত আছে। সেপ্টেম্বর-অক্টোবর কিংবা অক্টোবর-ডিসেম্বরে ওই সফরের চিন্তা করছে দুই বোর্ড। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ ওই তিন টেস্টের সিরিজের সঙ্গে তিনটি টি-টোয়েন্টিও রাখতে চায় বাংলাদেশ। বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান আকরাম খান এমনই জানিয়েছেন।

তবে এখন পর্যন্ত কিছুই নিশ্চিত হয়নি। শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন টেস্টের সিরিজটি জুলাইয়ে হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে সিরিজটি স্থগিত হয়ে যায়। করোনা সংকট এখনও না গেলেও শ্রীলংকা সফর করার জন্য উপযোগী। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এখনও অনুশীলনে না ফেরায় ম্যাচ খেলার পর্যাপ্ত অনুশীলন নিয়ে থাকছে প্রশ্ন।

তারও একটা সমাধান খুঁজে বের করেছে বোর্ড। সেটা হলো বিসিবির হাইপারফরম্যান্স (এইচপি) দল শ্রীলংকায় পাঠানো এবং তাদের সঙ্গে জাতীয় দলের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলানো। এইচপি দল পাঠালে শ্রীলংকা সফরে গিয়ে ক্রিকেটারদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থেকে ম্যাচ খেলতে হবে না। তার আগেই নিজেদের মধ্যে অনুশীলন চালিয়ে নিতে পারবে।

প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য লংকার কোন দলের বিপক্ষে খেলতে হলে বাংলাদেশ দলকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শর্ত মানতে হবে। শ্রীলংকায় সফরের বিমানে ওঠার আগে এবং বিমান থেকে নামার পরে সব ক্রিকেটারকে দিতে হবে করোনা পরীক্ষা।

ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, ‘দুই বোর্ডের আলাপ চলছে। আশা করছি দ্রুতই সূচি ঠিক হয়ে যাবে। প্রথমে শুধু টেস্টের আলোচনা হলেও এখন টি-টোয়েন্টিরও চিন্তা করা হচ্ছে। সফরটি সেপ্টেম্বর-অক্টোবর কিংবা অক্টোবর-ডিসেম্বরে হতে পারে। এছাড়া ক্রিকেটারদের কোয়ারেন্টাইনের শর্তও শীতিল হতে পারে।’

তিনি জানান, ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনের শর্ত পূরণ না হলে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা লংকান ক্রিকেটারদের সংস্পর্শে যেতে পারবেন না। তবে তাদের সকল অনুশীলনের সুযোগ-সুবিধা নিতে পারবেন। ম্যাচ খেলার ঘাটতি পূরণ করতে এইচপি দল পাঠিয়ে ১৪ দিনের মধ্যে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে পারবে বাংলাদেশ। সেজন্যই এইচপি দল পাঠানোর পরিকল্পনা মাথায় নিয়ে কাজ করছে বোর্ড।